Header Image
Bangladesh Flag

SYLHETARALAP.COM

logo
শুক্রবার, ৫ বৈশাখ ১৪২১; ১৮ এপ্রিল ২০১৪;
সর্বশেষ সংবাদ: রিজওয়ানা হাসানের অপহৃত স্বামী এবি সিদ্দিককে উদ্ধার করেছে পুলিশ       অপহরণের ৩ দিন পর গণজাগরণ মঞ্চের কর্মী উদ্ধার       অর্ধশতাধিক দোকান পুড়ে ছাই গাজীপুরে গ্যাস লাইন ফেটে অগ্নিকান্ড       শিবির সভাপতির হুঁশিয়ারি ‘আল্লামা সাঈদীর বিরুদ্ধে অন্যায় সিদ্ধান্ত ছাত্রজনতা মেনে নেবেনা’       লন্ডন আন্ডারগ্রাউন্ড ৫ দিনের স্ট্রাইকে যাচ্ছেঃআরএমটি জানালো      
সিলেটের আলাপ
আর্কাইভ
অনলাইন জরিপ
আজকের প্রশ্ন
বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের নামে আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রকে কবর দিয়েছে। দেশে আজ কোনো গণতন্ত্র নেই। অবৈধভাবে তারা ক্ষমতায় বসে আছে। আপনিও কি তানে মনে করেন?

হ্যাঁ
না
মন্তব্য নেই


শীর্ষ সংবাদ

ওয়েছ খছরু, সিলেট থেকে:প্রিয় স্বামী ইলিয়াস আলীর জন্যই রাজনীতিতে অভিষিক্ত হলেন স্ত্রী তাহসিনা রুশদী লুনা। এভাবে রাজনীতিতে জড়াবেন এমনটি তার ধারণায় ছিল না। চাকরি  করছেন, সংসার সামলাচ্ছেন সেটিই ছিল তার কাছে প্রিয় জায়গা। কিন্তু স্বামীর সাজানো রাজনৈতিক ময়দানে তাকেই ধরতে হচ্ছে হাল। আর এ কারণে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নির্দেশেই রাজনীতির ময়দানে পথচলা শুরু করলেন তিনি। গেলো উপজেলা নির্বাচনে রাজনীতির প্রথম পরীক্ষায় তিনি সফল হয়েছেন। ইলিয়াসের নির্বাচনী আসনে সিদ্ধান্ত  নিয়েই উপজেলা নির্বাচনে জয় ঘরে তুললেন লুনা। আর এই জয়ের মধ্য দিয়ে তার জয়ধ্বনি উড়তে শুরু করেছে সিলেটের রাজনৈতিক আকাশে। শেষমেশ স্বামী ইলিয়াসের রাজনৈতিক মাঠে মঙ্গলবার রাতে অভিষিক্ত হলেন লুনা। এ দিন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া সিলেট জেলা বিএনপির সকল অংশের নেতাদের নিয়ে তার গুলশান কার্যালয়ে বৈঠক করেন। আর বৈঠকে ভেঙে দেয়া হয়েছে ইলিয়াস  আলী গঠিত সিলেট জেলা বিএনপির কমিটি। নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। যদিও আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে কিছুটা মান-অভিমান রয়েই গেছে। কিন্তু এই কমিটি গঠনের চেয়ে সিলেটে সবচেয়ে বেশি আলোচিত হচ্ছে ইলিয়াসপত্নী তাহসিনা রুশদী লুনার রাজনৈতিক অভিষেক। ইলিয়াস গুমের দুই বছর চলে গেল গতকাল। এখনও মিলেনি খোঁজ। সিলেট বিএনপির এই নেতার গুমের ঘটনার পর সবচেয়ে বেশি চ্যালেঞ্জের মুখে লুনা। একদিকে সন্তান, সংসার। অন্যদিকে চাকরি। এর বাইরে তাকে নেতাকর্মীদের চাপ সামলাতে হয়েছে বেশি। ইলিয়াসের অবর্তমানে তার সব কাজ নিজ কাঁধে তুলে নিলেন লুনা। স্বামীর জন্য নীরবে ফেলেছেন চোখের জল। একই সঙ্গে স্বামীর বিশাল রাজনৈতিক রাজত্ব সামলাতে তাকে বারবার ছুটে আসতে হয়েছে সিলেটে। ইলিয়াসের নিজ গ্রাম বিশ্বনাথের রামধানায় বসে যতটুকু সম্ভব স্বামী ইলিয়াসের জন্য দলীয় কর্মকা- চালিয়েছেন।

ঢাকা: চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও আন্দোলনের পরবর্তী করণীয় ঠিক করতে ১৯ দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। বৃহস্পতিবার রাত ১০টায় চেয়ারপারসনের গুলশানস্থ রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক শুরু হয়। বৈঠকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, জামায়াতের কর্মপরিষদ সদস্য আবদুল হালিম, এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরউত্তম, জাতীয় পার্টির (জাফর) সভাপতি কাজী জাফর আহমেদ, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মে. জে. (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক, বিজেপির চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ, ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী, খেলাফত মজলিসের সভাপতি সৈয়দ মজিবুর রহমান, জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, এনপিপির সভাপতি শেখ শওকত হোসেন নীলু, এনডিপির চেয়রাম্যান খন্দকার গোলাম মর্তুজা, লেবার পার্টির সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ইসলামীক পার্টির সভাপতি আবদুল মবিন, ন্যাপের চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি, মুসলিম লীগের চেয়ারম্যান এএইচএম কামরুজ্জামান খান, পিপলস লীগের সভাপতি গরীবে নেওয়াজ, ন্যাপ ভাসানীর চেয়ারম্যান আজহারুল ইসলাম, জমিয়তে ওলামায়ে ইসলামের সভাপতি মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, ডেমোক্রেটিক লীগের সভাপতি সাইফুদ্দিন মনি উপস্থিত রয়েছেন।

সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদ-লন্ডন থেকে:লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশ আজকে জানিয়েছে, টাওয়ার হ্যামলেটস মেয়রের বিরুদ্ধে আনীত আর্থিক অনিয়ম ও বাংলাদেশীদের গ্র্যান্ট দেয়ার ব্যাপারে আধিক্য, মিস-ম্যানেজম্যান্টের ব্যাপারে কাউন্সিলের গুরুত্বপূর্ণ তিনটি ফাইল পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পরীক্ষা করে দেখার পরেও  এ ব্যাপারে কোন তথ্য প্রমাণ তারা পায়নি।মেট্রোপলিটন পুলিশ তাদের ভাষায় বলছে- “নো নিউ ক্রেডিবল এভিডেন্স অব ক্রিমিন্যালিটি “।পুলিশ বলছে বিবিসি প্যানোরামাতে চ্যারিটির আর্থিক অনিয়ম প্রদানের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ডিপার্টম্যান্ট কমিউনিটি এন্ড লোকাল গভর্ণম্যান্ট এর পক্ষ থেকে তাদেরকে তিনটি ফাইল প্রদান করা হয় তদন্ত করে দেখার জন্যে।পুলিশ সেই তিনটি ফাইল খতিয়ে দেখে কোন অনিয়ম পায়নি।পুলিশ জানিয়েছে, “এখন আর নতুন করে তদন্তের প্রয়োজন নেই”।স্কটল্যান্ড ইয়ার্ডের স্পেশাল টিম ফাইলগুলো রিভিউ করেছে এবং তাতেও কোন অনিয়ম পাওয়ার তথ্য নেই। এর বাইরেও এরিক পিকলের পাঠানো তদন্ত দল- প্রাইস ওয়াটার হাউস কোপার্স এলএলপি তদন্ত দলের মাধ্যমে ফাইল জব্ধ করে খতিয়ে দেখা হয়।


ঢাকা:নিখোঁজ বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনা বলেছেন, স্বামী নিখোঁজ হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আমার সন্তানদের নিয়ে দেখা করেছিলাম। তিনি আমাদের তাকে ফিরেয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন। দুই বছর পার হয়েছে, তার আশ্বাস শুধু আশ্বাসই রয়ে গেছে।বৃহস্পতিবার দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে বনানীর সিলেট হাউসে নিজ বাসভবনে কান্নাজড়িত কণ্ঠে এভাবেই নিখোঁজ স্বামী ইলিয়াস আলীকে ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশ্বাসের কথা সাংবাদিকদের সামনে উপস্থাপন করেন তিনি। এখনও স্বামী ফিরে আসবে, এ আশায় বুক বেঁধে আছি উল্লেখ করে তাহসিনা রুশদীর বলেন, যতক্ষণ বেঁচে থাকব ততক্ষণই এ আশা করব। তিনি অভিযোগ করেন, রাষ্ট্রের কাছে যদি সহযোগিতা না পাই তাহলে আর কার কাছে পাব। আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস আছে। তিনি আমার স্বামীকে ফিরিয়ে দেবেন।সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, গত দেড় বছর প্রশাসনের পক্ষ থেকে আমার পরিবারের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করা হয়নি। কিংবা তার উদ্ধারের কোনো অগ্রগতি সম্পর্কে আমাদের জানানো হয়নি।ইলিয়াস আলীর গুমের বিষয়ে পাশের রাষ্ট্রের কোনো সংস্থা জড়িত কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কে বা কারা জড়িত তা আমি বলতে পারব না। তবে এটুকু বলতে পারব রাজনৈতিক কারণেই তাকে গুম করা হয়েছে।


নিজস্ব প্রতিবেদনঃ দেশে বর্তমানে গণতন্ত্রের নামে ফ্যাসিজম চলছে। আওয়ামী লীগ নামের সরকারটি শুরু থেকেই ফ্যাসিবাদী আচরণ করছে। তারা মুখে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা বললেও কার্যকলাপে মূল চেতনার পরিপন্থী। এই ফ্যাসিজম কেবল  হিটলার ও মুসলিনীর সময়কালের তুলনা চলে।বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক বাংলাদেশ আয়োজিত ‘গণতান্ত্রিক সংকট : উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক গোলটেবিলে আলোচনায় বিশিষ্টজনরা এ সব কথা বলেন।রাষ্ট্র ও সমাজ চিন্তক কবি ফরহাদ মজহার বলেন, দেশে গুম, অপহরণের ঘটনা ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। যারা বর্তমান সরকারকে সমর্থন করছেন তাদের পরিবারের কেউ নিরাপদ নয়। তিনি বলেন, আমরা অদ্ভুত এক দেশে বাস করছি যেখানে বিদেশি গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা আরেক দেশের লোককে তুলে নিয়ে তাদের দেশে চলে যাচ্ছে। স্বাধীন কোনো দেশে এটা চলতে পারে না। কেউ এখানে নিরাপদ নয়। রিজওয়ানার স্বামীকে অপহরণের ঘটনা আমাদের চরমভাবে মর্মাহত করেছে।ফরহাদ মজহার বলেন, লুটপাট ছাড়া কিছুই করতে পারেনি এই সরকার। দেশে-বিদেশের কেউ এ সরকারকে গণতান্ত্রিক সরকার বলে মনে করে না। রাশিয়াসহ কিছু আন্তর্জাতিক সম্পর্ক দেশের অভ্যন্তরীণ সম্পর্ককে নষ্ট করছে। তাই সবাইকে দল মতের ঊর্ধ্বে উঠে গণতন্ত্রের জন্য কাজ করতে হবে। প্রবাসীদেরকে নির্দলীয় অবস্থান থেকে গণতন্ত্রকে পক্ষে ভূমিকা রাখতে হবে। সমাজের বিভাজনগুলো কাটিয়ে উঠতে হবে।

ঢাকা:বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসানের স্বামী আবু বকর সিদ্দিককে রাত দেড়টার সময় ধানমণ্ডি মাঠ এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ধানমণ্ডি থাকার ওসি মো. আবু সালেহ মাসুদ শেখ।রমনা জোনের ডিসি মারুফ হাসানও এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।এদিকে ফতুল্লা থানার ওসি আক্তার হোসেন বলেন, আমরা জানতে পেরেছি সৈয়দা রিজওয়ানা হাসানের স্বামী ধানমণ্ডি থানায় আছেন। আমরা ফতুল্লা থেকে ধানমণ্ডি থানার উদ্দেশে রওনা হয়েছি।

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক :এবারে যেকোনো অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস থেকেই অন্য কোনো ডেস্কটপ পিসিকে নিয়ন্ত্রণের জন্য অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করেছে অনলাইন জায়ান্ট গুগল। 'ক্রোম রিমোট সার্ভিস' নামের এই অ্যাপসটির মাধ্যমে গুগল আইডি ব্যবহার করে দেখে নেওয়া যাবে নিয়ন্ত্রণযোগ্য ডিভাইসের তালিকা। আর তারপর একটি পিন নম্বর ব্যবহার করে সেই তালিকার সকল ডিভাইসই চালানো যাবে অ্যান্ড্রয়েড থেকেই। এর জন্য কেবল ওই ডিভাইসটি অন থাকতে হবে এবং সেটিকে ইন্টারনেটে সংযুক্ত থাকতে হবে। অ্যাপ্লিকেশনটি এর মধ্যে চালু হয়ে গেলেও সেটি খানিকটা ধীর গতিতে কাজ করছে। রিমোট পিসিতে কোনো ফাইল খোলা হলে তা অ্যান্ড্রয়েডে দেখানোর জন্য কিছু সময় অপেক্ষা করে থাকতে হয়। তবে শীঘ্রই এমন পরিস্থিতির উত্তরণ ঘটবে বলে জানিয়েছে গুগল। ম্যাক, উইন্ডোজ, ক্রোম ওএস এবং লিনাক্স পিসিগুলো এর মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। এই বছরেই এই অ্যাপ্লিকেশনের আইওএস সংস্করণ উন্মুক্ত হবে বলেও জানিয়েছে গুগল।

ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন সিলেট ইউকে কমিটির উদ্যোগে বাংলা নববর্ষের অনুষ্ঠান হয়েছে।  গত ১৬ এপ্রিল সারে গীলফোর্ড এর একটি মনোরম পরিবেশে এই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইউকে কমিটির চেয়ারম্যান মাহমাদুর রশীদ, সেক্রেটারী মিছবাহ জামাল (রেডিও, টিভি প্রেজেন্টার) এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে সবাইকে স্বাগত জানান জনাব ইয়ামিন দিদার ও হেলাল মালিক, অনুষ্ঠানে অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান নতুনদিন সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান জনাব এম এ আহাদ, ন্যাশনাল হার্টফাউন্ডেশন সিলেটের পাবলিসিটি সেক্রেটারী বিশিষ্ট রেডিও ব্যাক্তিত্ব আবু তালেব মুরাদ। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সারের গীলফোর্ডের প্রথম রেষ্টুরেন্ট ব্যবসায়ী জমির উদ্দিন সুন্দর মিয়া, আসিফ ইকবাল ইমরান চৌধুরী, এখলাছুর রহমান আলী, কামাল ইয়াকুব, রফিক মিয়া, মুছলেহুজ্জামান, কাউন্সিলার জাহাঙ্গীর হক, এ আর খান, রফিকুল ইসলাম, এনায়েত খান, হেলাল চৌধুরী, ফারুক আহমদ, ইয়ত্তর খান, শামসুল ইসলাম সেলিম, আশরাফ উদ্দিন, আবদুল মতলিব, শামসুল ইসলাম, আবদুল কাইয়ুম, শাহনূর খান, বাদশাহ কাদির, আজিজ বকস, আবদুল হাকিম আজাদ, মো. ইকবাল মুরাদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবশন করেন শিল্পী রওশন আরা মনি, যন্ত্রে ছিলেন ডগলাস ও রেজান।


ঢাকা: বিতর্কিত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও প্রশ্নবিদ্ধ চতুর্থ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের পর সিইসি কাজী রকিবউদ্দিন আহমেদের পর এবার বিদেশ ভ্রমণে যাচ্ছেন নির্বাচন কমিশনার জাবেদ আলী। উপজেলা নির্বাচনের প্রশ্নবিদ্ধ সফলতার পুরস্কার হিসেবে বিদেশ ভ্রমণের হিড়িক পড়েছে নির্বাচন কমিশনে (ইসি)।আডিয়া প্রকল্পের আওতায় এবার এক মাসের সফরে অস্ট্রেলিয়া ও সিঙ্গাপুরে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) জাবেদ আলীসহ দুই কর্মকর্তা। অন্য দুই সদস্য হলেন ইসি সচিবালয়ের যুগ্ম সচিব জেসমিন টুলি ও আইডিইএ প্রকল্পের ডেপুটি প্রজেক্ট ডিরেক্টর আবদুল বারী। বৃহস্পতিবার রাতেই তাদের ঢাকা ত্যাগ করার কথা। ইসির দায়িত্বশীল একটি সূত্র শীর্ষ নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।সূত্র জানায়, আইডেন্টিফিকেশন সিস্টেম ফর এনহ্যানসিং অ্যাকসেস টু সার্ভিসেস (আইডিইএ) প্রকল্পের অধীনে বিভিন্ন সেমিনারের নামে বিদেশে ট্যুরের আয়োজন করে ইসি। এ কার্যক্রমে কমিশনারদের সঙ্গে তাদের আস্থাভাজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও বিদেশ ভ্রমণ করবেন। এ ভ্রমণে প্রায় দেড় কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়।এর আগে দীর্ঘ দেড় মাস আমেরিকায় সফর করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দিন আহমদ। তার সঙ্গে যোগ দেন ইসি সচিবালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব সিরাজুল ইসলাম ও আইডিইএ প্রকল্প পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সুলতানুজ্জামান মো. সালেহ উদ্দিন।


ডেস্ক নিউজ:হাসপাতালে বারবার মূর্ছা যাচ্ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ও গণজাগরণ মঞ্চের কর্মী কনক। হাসপাতালে  নিজের অপহরণের কথা বলতে গিয়ে বারবার অচেতন হয়ে পড়ছিলেন। তিনি বলেন, হল থেকে বেরিয়ে পায়ে হেঁটে বড়বোনের লালবাগের বাসার দিকে যাচ্ছিলাম। কথা শেষ না হতেই আবার তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। ঠিক পাঁচ মিনিট পর আবার চোখ খোলেন। তখন জানান, অজ্ঞাতনামা চার থেকে পাঁচ ব্যক্তি পথরোধ করার পর তার চোখেমুখে মরিচের গুঁড়ার মতো ঝাঁঝালো বস্তু ছিটিয়ে দেয়। এ সময় তার চোখ-মুখ জ্বলতে থাকে। এর পরের কিছু আর মনে নেই। স্বজনরা জানান, গত ১৫ই এপ্রিল সন্ধ্যা সাতটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুলার রোড ও বকশিবাজারের মধ্যস্থান থেকে একদল দুর্বৃত্তের হাতে অপহৃত হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ইউনিয়নের সদস্য ও শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চের সক্রিয় কর্মী আজিজুল হায়াত কনক (২৪)। গতকাল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বসুন্ধরা সিটির সামনের একটি চায়ের দোকান থেকে তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিউরো সার্জারি বিভাগের ১০০ নম্বর ওয়ার্ডের অবজারভেশনে কনকের চিকিৎসা চলছে। মেডিকেল সূত্র জানায়, তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হচ্ছে। চেতনানাশক ওষুধ তার চোখে-মুখে সেপ্র করায় ঘুমের অচেতনা কাটতে একটু সময় লাগছে। এজন্য তাকে অবজারভেশন কক্ষে রাখা হয়েছে। পুলিশ ও স্বজনরা জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাইন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্র আজিজুল হায়াত কনক। বিশ্ববিদ্যালয়ের জিয়া হলের ২২৫ নম্বর কক্ষে থাকেন।

ওয়েছ খছরু, সিলেট থেকে:প্রিয় স্বামী ইলিয়াস আলীর জন্যই রাজনীতিতে অভিষিক্ত হলেন স্ত্রী তাহসিনা রুশদী লুনা। এভাবে রাজনীতিতে জড়াবেন এমনটি তার ধারণায় ছিল না। চাকরি  করছেন, সংসার সামলাচ্ছেন সেটিই ছিল তার কাছে প্রিয় জায়গা। কিন্তু স্বামীর সাজানো রাজনৈতিক ময়দানে তাকেই ধরতে হচ্ছে হাল। আর এ কারণে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নির্দেশেই রাজনীতির ময়দানে পথচলা শুরু করলেন তিনি। গেলো উপজেলা নির্বাচনে রাজনীতির প্রথম পরীক্ষায় তিনি সফল হয়েছেন। ইলিয়াসের নির্বাচনী আসনে সিদ্ধান্ত  নিয়েই উপজেলা নির্বাচনে জয় ঘরে তুললেন লুনা। আর এই জয়ের মধ্য দিয়ে তার জয়ধ্বনি উড়তে শুরু করেছে সিলেটের রাজনৈতিক আকাশে। শেষমেশ স্বামী ইলিয়াসের রাজনৈতিক মাঠে মঙ্গলবার রাতে অভিষিক্ত হলেন লুনা। এ দিন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া সিলেট জেলা বিএনপির সকল অংশের নেতাদের নিয়ে তার গুলশান কার্যালয়ে বৈঠক করেন। আর বৈঠকে ভেঙে দেয়া হয়েছে ইলিয়াস  আলী গঠিত সিলেট জেলা বিএনপির কমিটি। নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। যদিও আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে কিছুটা মান-অভিমান রয়েই গেছে। কিন্তু এই কমিটি গঠনের চেয়ে সিলেটে সবচেয়ে বেশি আলোচিত হচ্ছে ইলিয়াসপত্নী তাহসিনা রুশদী লুনার রাজনৈতিক অভিষেক। ইলিয়াস গুমের দুই বছর চলে গেল গতকাল। এখনও মিলেনি খোঁজ। সিলেট বিএনপির এই নেতার গুমের ঘটনার পর সবচেয়ে বেশি চ্যালেঞ্জের মুখে লুনা। একদিকে সন্তান, সংসার। অন্যদিকে চাকরি। এর বাইরে তাকে নেতাকর্মীদের চাপ সামলাতে হয়েছে বেশি। ইলিয়াসের অবর্তমানে তার সব কাজ নিজ কাঁধে তুলে নিলেন লুনা। স্বামীর জন্য নীরবে ফেলেছেন চোখের জল। একই সঙ্গে স্বামীর বিশাল রাজনৈতিক রাজত্ব সামলাতে তাকে বারবার ছুটে আসতে হয়েছে সিলেটে। ইলিয়াসের নিজ গ্রাম বিশ্বনাথের রামধানায় বসে যতটুকু সম্ভব স্বামী ইলিয়াসের জন্য দলীয় কর্মকা- চালিয়েছেন।

ঢাকা:১৭ এপ্রিল জাতীয় মানবাধিকার সমিতির চেয়ারম্যান মঞ্জুর হোসেন ঈসা ও মহাসচিব মিলন মল্লিক এক বিবৃতিতে বেলার প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রেজওয়ানা হাসানের স্বামী বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আবু বক্কর সিদ্দিককে দিনে দুপুরে অপহরণের উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন জাতি এক গভীর সংকটে রয়েছে। বিএনপির সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এম. ইলিয়াস আলী গুম হওয়ার দুই বছর শেষ হয়ে তিন বছরে যখন পড়েছে তাকে নিয়ে ও তার পরিবার নিয়ে বিরোধীদল ও মানবাধিকার সংগঠন ও বিভিন্ন গণমাধ্যম যখন সংবাদ প্রকাশ করছিল ঠিক সেই মুহুর্তে সংবাদের শিরোনাম হয়ে উপস্থিত হলেন বিশিস্ট ব্যবসায়ী আবু বক্কর সিদ্দিক। ব্যক্তি জীবনে কারো সাথে তার কোন শত্র“তা না থাকলেও শুধুমাত্র তার স্ত্রী বেলার প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রেজওয়ানা হাসানের উপর রাষ্ট্রীয় আক্রোশের কারণেই এই ঘটনার জন্ম নিয়েছে বলে বিভিন্ন সূত্র থেকে বলা হচ্ছে। নেতৃবৃন্দ বলেন গুম, খুন, এই সরকারের একটি নিয়মতান্ত্রিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। শুধুমাত্র ঢাকা শহরে গত ৩ মাসে ২২ জনের উপর গুম হয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ৩৮নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাজেদুল ইসলাম সুমন, উত্তরার মুন্নাসহ ছাত্র-ব্যবসায়ী ও বিরোধীদলের নেতাকর্মীরা। মানবাধিকার সংগঠনকে বলেন যে রাষ্ট্রে জনগণের জীবনের নিরাপত্তা নেই সে রাষ্ট্রে প্রধান যখন পুলিশকে রাষ্ট্রীয় লাঠিয়াল বাহিনী হিসেবে ব্যবহার করে তখন গণতন্ত্র ও রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থা মুখ থুবড়ে পড়ে যায়। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে আবু বক্কর সিদ্দিককে তার পরিবারের কাছে ফেরত দেয়ার আহ্বান জানান। অন্যথায় আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে ফেরত দেয়া না হলে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মানবাধিকার

ঢাকা : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠক করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত শিরো সাদোশিমা।বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ৯টার দিকে চেয়ারপারসনের গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক শুরু হয়। শেষ হয় রাত ৯টা ৪০ মিনিটে। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান। বৈঠকে দেশের সমসায়িক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

কলকাতা: আগুনের দুর্ঘটনা থেকে অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যটির মালদহ জেলার মালদহ শহরে তার হোটেলের ঘরে আগুন লেগে যায়। এ ঘটনায় তিনি আহত হয়েছেন এবং বর্তমানে তার চিকিৎসা চলছে।জানা গেছে, নির্বাচনী প্রচারনা শেষে বৃহস্পতিবার বিকালে হোটেলে ফেরার কিছু সময় পরেই তার ঘরে হঠাৎ আগুন লেগে যায়। কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘর। সে সময় ঘরে একা ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। হোটেলের কর্মীও নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা অফিসাররা দ্রুত তাকে ঘর থেকে বের করে আনে। ততক্ষণে বিষাক্ত গ্যাসে অসুস্থ হয়ে পড়েন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শ্বাসকষ্ট ও বুকে ব্যথা অনুভব করেন তিনি। তবে তিনি শারীরিকভাবে অক্ষত রয়েছেন বলে জানিয়েছেন তার সফরসঙ্গী পরিবহনমন্ত্রী মদন মিত্র। প্রসঙ্গত, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্বাচনী প্রচারে এখন মালদহে অবস্থান করছেন।

ঢাকা: চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও আন্দোলনের পরবর্তী করণীয় ঠিক করতে ১৯ দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। বৃহস্পতিবার রাত ১০টায় চেয়ারপারসনের গুলশানস্থ রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক শুরু হয়। বৈঠকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, জামায়াতের কর্মপরিষদ সদস্য আবদুল হালিম, এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরউত্তম, জাতীয় পার্টির (জাফর) সভাপতি কাজী জাফর আহমেদ, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মে. জে. (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক, বিজেপির চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ, ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী, খেলাফত মজলিসের সভাপতি সৈয়দ মজিবুর রহমান, জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, এনপিপির সভাপতি শেখ শওকত হোসেন নীলু, এনডিপির চেয়রাম্যান খন্দকার গোলাম মর্তুজা, লেবার পার্টির সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ইসলামীক পার্টির সভাপতি আবদুল মবিন, ন্যাপের চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি, মুসলিম লীগের চেয়ারম্যান এএইচএম কামরুজ্জামান খান, পিপলস লীগের সভাপতি গরীবে নেওয়াজ, ন্যাপ ভাসানীর চেয়ারম্যান আজহারুল ইসলাম, জমিয়তে ওলামায়ে ইসলামের সভাপতি মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, ডেমোক্রেটিক লীগের সভাপতি সাইফুদ্দিন মনি উপস্থিত রয়েছেন।

ঢাকা: গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার গড়গড়িয়া মাস্টারবাড়ি এলাকায় তিতাস গ্যাস পাইপলাইনের ফেটে আগুন লেগেছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক চারলেন সমপ্রসারণ কাজ করার সময় এ ঘটনা ঘটে। অগ্নিকান্ডের ঘটনায় অর্ধশতাধিক ক্ষুদ্র দোকানপাট, মসজিদ ও দুটি বাড়ি পুড়ে গেছে।খবর পেয়ে শ্রীপুর ও জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের দুটি ইউনিট রাত ৮টা ৫০ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।জানা য়ায়, ভেক্যু দিয়ে মহাসড়কের পাশে মাটি খননের সময় মাটির নিচের গ্যাস সরবরাহ লাইনের বড় পাইপ ফেটে আগুন মুহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। এতে মাস্টারবাড়ী বাজার জামে মসজিদসহ সড়কের পাশের হকার্স মার্কেটের দোকানপাট পুড়ে যায়। প্রত্যক্ষদর্শী নুরুল ইসলাম মিষ্টার জানান, আগুনে হকার্স মার্কেটের অর্ধশতাধিক দোকানপাট, বাজার জামে মসজিদ ও কয়েকটি বাড়ি-ঘর পুড়ে গেছে।শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আমির হোসেন বলেন, জয়দেবপুর-ময়মনসিংহ সড়র চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্পের কর্মীরা একটি ভেকু (মাটি কাটার মেশিন) দিয়ে মাটি কাটার কাজ করছিল। এ সময় ভূ-গর্ভস্থ থাকা তিতাস গ্যাসের একটি পাইপ লাইন কাটা পড়ে আগুনের সূত্রপাত হয়। আগুনের শিখা ২০-৩০ ফুট পর্যন্ত উপরে উঠে বলে জানান তিনি।আগুন লাগার এ ঘটনায় কোনো হতাহত হয়নি বলেও জানান তিনি।

ঢাকা: বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমীর মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর বিরুদ্ধে কোন অন্যায় সিদ্ধান্ত মেনে নেয়া হবে না বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি আবদুল জব্বার। বৃহস্পতিবার ঢাকা জেলা দক্ষিণের এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন। আবদুল জব্বার বলেন, বিচারের নামে প্রহসন করে ইসলাম ও ইসলামী আন্দোলনকে নিঃশেষ করতে চায় অবৈধ সরকার। বাংলার ইসলাম প্রিয় জনতা তাদের ষড়যন্ত্র বাস্তবায়ন হতে দেবেনা। অবিলম্বে চক্রান্ত বন্ধ আল্লামা সাঈদীকে নি:শর্ত মুক্তি দিতে হবে। অন্যথায় সারা বিশ্বে তাওহীদি জনতার ক্ষোভের বিস্ফোরণ ঘটতে পারে।তিনি বলেন, মাওলানা সাঈদী শুধূ জামায়াতে ইসলামীর নেতা নন, তিনি বিশ্ব ইসলামী আন্দোলনের অন্যতম সিপাহসালার। সারা জীবন তিনি কোরআনের প্রচার ও প্রসারের কাজ করেছেন। শুধু বাংলাদেশ নয়, গোটা বিশ্বের কোটি কোটি ইসলামপ্রিয় মানুষের হৃদয়ের স্পন্দন তিনি। আল্লামা সাঈদীর বিরুদ্ধে কোন অন্যায় সিদ্ধান্ত ছাত্রজনতা মেনে নেবেনা।সরকার প্রতিহিংসা চরিতার্থ করছে উল্লেখ করে শিবির সভাপতি বলেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতেই তাঁর বিরুদ্ধে কথিত মানবতাবিরোধী অপরাধের মিথ্যা মামলা দায়ের করে ট্রাইব্যুনালে মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে আনীত সকল অভিযোগকে মিথ্যা বানোয়াট ও মানগড়া । কোন অভিযোগই সরকারপক্ষ প্রমাণ করতে পারেনি


লন্ডন:খেলাফত মজলিস লন্ডন মহানগরীর উদ্যোগে নির্ধারিত কর্মীদের নিয়ে এক শিক্ষা সভা অনুষ্ঠিত হয়। খেলাফত মজলিস লন্ডন মহানগরীর সহ সভাপতি হাফিজ আশরাফ চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও মহানগর প্রশিক্ষণ সম্পাদক মাওলানা আনিসুর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত শিক্ষা সভায় দারসুল কোরআন পেশ করেন মহানগর সহসভাপতি প্রভাষক মাওলানা হুমায়ুন রশীদ নূরী, দাওয়াতে দ্বীন ও কর্মপদ্ধতির উপর আলোচনা পেশ করেন আল কোরআন রিসার্চ ফাউন্ডেশন ইউকের চেয়ারপার্সন ও ইউকে খেলাফত মজলিসের সহসভাপতি শায়খ হাসান নূরী চৌধুরী। শিক্ষায় সভার সমাপনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও যুক্তরাজ্য খেলাফত মজলিসের সভাপতি অধ্যাপক মাওলানা আবদুল কাদির সালেহ। সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য খেলাফত মজলিসের ট্রেজারার মাওলানা আবদুল করিম, লন্ডন মহানগরীর সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আবদুল আহাদ, মাওলানা নাজমুল ইসলাম, মাওলানা জয়নাল আবেদীন, হাফিজ খলিলুর রহমান, হাফিজ শিব্বির আহমদ, মাওলানা আমিরুল ইসলাম, হাফিজ এমদাদ আহমদ, জনাব কামরুল ইসলাম, মাওলানা উবায়দুর রহমান প্রমুখ।প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাওলানা আবদুল কাদির সালেহ বলেন, ইসলামী আন্দোলনের কর্মীদেরকে দ্বীনি শিক্ষার সাথে সাথে মুসলিম বিশ্ব সম্পর্কে অবগত থাকতে হবে। তিনি বলেন  শাসকদের কারণেই মুসলিম বিশ্ব আজ দৃশ্যত সার্বভৌম হলেও মুলত: পরাধীনতার শৃংখলে আবদ্ধ। তারাই  আজ নিজ নিজ দেশের নাগরিক মুসলমান এবং তাদের ধর্মীয় জীবনকে বাধাগ্রস্থ করছে। এজন্যে প্রয়োজন হচ্ছে ক্ষমতা লোভী ও পরাধীন মানসিকতা সম্পন্ন তাবেদার স্বৈরশাসকদের বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়েতোলা। তিনি বাংলাদেশ প্রসঙ্গে বলেন, বর্তমান সরকার ৫ই মে যে প্রহসনের নির্বিচন করেছে এটা সম্পূর্ণ অবৈধ। একরাতে হাজার হাজার আলেমকে হত্যা করে এই সরকার বিদেশীদের আস্থা অর্জন করেছে, কিন্তু দেশের জনগণ তাদেরকে চায় না।

ঢাকা:জিয়া উদ্দিন আহমেদ বাবলুকে মহাসচিব করার পর থেকে বেশ স্বস্তিতে রয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। পার্টির নেতারা বলছেন, সরকারের আস্থাভাজন ব্যক্তি বাবলুকে মহাসচিব করার পর থেকে এরশাদ এখন নিজেকে নিরাপদ মনে করছেন। বর্তমানে এরশাদ তার ছেলেকে নিয়ে কক্সবাজারে সময় কাটাচ্ছেন।দলীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ১০ এপ্রিল বৃহস্পতিবার জাতীয় পার্টির মহাসচিব পদে রদবদল করা হয়। পার্টির গঠনতন্ত্রের ৩৯ ধারা মোতাবেক এক আদেশে প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়া উদ্দিন আহমেদ বাবলুকে মহাসচিব করা হয়। দীর্ঘ ১৪ বছর ধরে মহাসচিবের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার। তিনি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক সহচর ছিলেন। আর জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু সরকার ও বর্তমান বিরোধী দলীয় নেত্রী রওশন এরশাদের আস্থাভাজন ব্যক্তি হিসেবে পরিচিত। মিডিয়া ও রাজনৈতিক মহলে বিষয়টি বেশ আলোচনায় আসে।সরকারের চাপে জিয়া উদ্দিন আহমেদ বাবলুকে মহাসচিব করা হয়েছে বলে সর্বত্র আলোচনার ঝড় উঠে। আর পার্টির চেয়ারম্যান বরাবরই বলেছেন, দলকে গতিশীল করতে মহাসচিব রদবদল করা হয়েছে।


সাক্ষাৎকার



ডেস্ক নিউজ:১৭ই এপ্রিল ২০১২ থেকে ২০১৪। কেটে গেছে দু’টি বছর। এখনও উদ্ধার হননি বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেকএমপি এম. ইলিয়াস আলী। উদঘাটন হয়নি নিখোঁজ রহস্যের। ইলিয়াস আলী বেঁচে আছেন নাকি মারা গেছেন? মেলেনি এ প্রশ্নের উত্তর। বনানীর নিজ বাড়িতে ফেরার পথে রাজধানীর মহাখালী সাউথ পয়েন্ট স্কুলের সামনে থেকে গাড়িচালকসহ রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হন জনপ্রিয় এ নেতা। প্রথম থেকেই বিএনপি অভিযোগ করে আসছে, ইলিয়াস আলীকে গুম করেছে সরকারি বাহিনী। যদিও সে অভিযোগ অস্বীকার করেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। ইলিয়াস আলীকে উদ্ধারের দাবিতে টানা আন্দোলন করেছে বিএনপি। সরকারকে অব্যাহত তাগিদ দিয়ে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক মহল। কিন্তু এখনও পরিষ্কার বক্তব্য আসেনি সরকারের তরফে। আদালতের নির্দেশনা মেনে নিয়মিত অগ্রগতির তদন্ত প্রতিবেদন দিয়ে গেলেও কার্যত উদ্ধার তৎপরতা বন্ধ করে দিয়েছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। তিনবার পরিবর্তন হয়েছে নিখোঁজের ঘটনায় দায়ের করা জিডির তদন্তকারী কর্মকর্তা। তারপরও ইলিয়াস আলী একদিন ফিরে আসবেন- এমন আশা ও বিশ্বাস নিয়ে অপেক্ষার যন্ত্রণাময় দিন কাটাচ্ছেন তার পরিবার। প্রিয় নেতার ফেরার অপেক্ষায় আশায় বুক বেঁধে আছেন তার নির্বাচনী এলাকাসহ সারাদেশের বিএনপি নেতাকর্মীরা। দৈনিক মানবজমিনের সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎকারে নিখোঁজের দুই বছরের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেছেন তার স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনা। তিনি বলেন, দুই বছর কেটে গেল। প্রতিটি দিন প্রতিটি ক্ষণ কেটেছে যন্ত্রণাদায়ক অপেক্ষায়।

বিশেষ কলাম



মিনার রশিদ : আজ পহেলা বৈশাখ। এই দিনটিতে বাঙালী মাত্রই নষ্টালজিক না হয়ে পারে না। অনেক স্মৃতির ভিড়ে এই মুহুর্তে মনে পড়ছে আমাদের প্রাইমারী স্কুলের এক স্যারের কথা। সেই স্যার পড়ার ফাঁকে ফাঁকে মজার মজার গল্প বলতেন। সেই গল্পগুিল হতো জীবনমুখী এবং হাস্যরসে ভরপুর। ক্লাসের কোন মেয়ে ভবিষ্যতে দজ্জাল শাশুড়ির পাল্লায় পড়লে কিভাবে আত্মরক্ষা করতে হবে সেই কৌশলও শিখিয়ে দিতেন। সেই উদ্দেশ্যে স্যারের বলা মজার একটি গল্প দিয়ে আজকের লেখাটি শুরু করতে যাচ্ছি।এক দজ্জাল শাশুড়ি। ছেলে বউকে উঠতে বসতে বকা ঝকা করে। তখন গ্রামের এক দয়ার্দ্র ব্যক্তি এই বউটিকে কিছু বুদ্ধি শিখিয়ে দেন । পরদিন ঘুম থেকে উঠে শাশুড়ি যথারীতি বউকে গালিগালাজ শুরু করে দেয় । বউ কাছে গিয়ে  আস্তে করে বলে, আম্মা, এতক্ষণ আপনি আমাকে যা যা বলেছেন আমি আপনাকে তার ডাবল মানে দুই গুণ বললাম। এই কথা শুনে শাশুড়ি খেপে গিয়ে আরো জোরে বকাবকি শুরু করে দেয় । বউ আবারও কাছে গিয়ে আস্তে করে বলে, ‘আম্মা ডাবল’।এখন শাশুড়ি যতবার গালি দেয় বউ ততবার কাছে গিয়ে ফিসফিসিয়ে বলে, ‘আম্মা ডাবল’। গ্রামের মানুষ বলাবলি শুরু করে দিয়েছে, বুড়িটা কি শেষমেষ পাগল হয়ে গেলো নাকি ? এভাবে বকতে বকতে এক সময় শাশুড়ি ক্লান্ত  হয়ে পড়ে। একদিন বউকে ডেকে বলে, দেখো বউমা, তোমার পায়ে পড়ি। তুমি আমাকে আর ‘আম্মা ডাবল’ এই কথাটি বলো না। আমিও তোমাকে আর কোনদিন গালি দেবো না।

এক্সক্লুসিভ



বুধবারের অনলাইন পত্রিকা গুলোতে দু‘টি সংবাদ দৃস্টি আকর্ষণ করে। একটি আমাদের সার্বভৌমত্বকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। আরেকটি খবর আঘাত করেছে শতভাগ মানুষের ধর্মীয় চেতনায়। নানা প্রশ্ন জাগে মনে। আমরা কোথায় যাচ্ছি! কোন দিকে ধাবিত হচ্ছে আমাদের মানচিত্র। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বলতে বলতে মুখে ফেনা উঠে। এই কি আমাদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা! এইটুকু পাঠ করার পর হয়ত ভাবছেন আমি কিসের জন্য এত উদ্বিগ্ন। দেশতো এখন ভালই চলছে। অনেকেই দেশ থেকে ফোন করেন। বলেন এখন দেশ অনেক ভাল চলছে। আমার এত উদ্বেগ কেন! আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে বলেই কি আমরা উদ্বিগ্ন? এই প্রশ্নটাও করেন অনেকে। আমার উদ্বেগের বিষয়টা ভিন্ন জায়গায়। ইন্ডিয়ার একটি পত্রিকার খবর। গত মঙ্গলবার টাইমস্ অব ইন্ডিয়া অনলাইন একটি খবর দিয়েছে। আই এস আই (পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থা)-এর সদস্য সন্দেহে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে ‘র’ (ইন্ডিয়ান গোয়েন্দা সংস্থা)। সেটা তারা করতেই পারেন। তবে কথা আছে। র’ তাঁকে ঢাকায় বিমান বন্দরে আটক করে নিয়ে গেছে ইন্ডিয়ায়। গা শিউরে উঠার মত সংবাদ। তাও আবার ইন্ডিয়ান পত্রিকায় প্রকাশিত খবর। বাংলাদেশের কোন গণমাধ্যম বিষয়টি জানলো না। জানলেও হয়ত অনেকে চেপে গেছেন। বাংলাদেশের অনেক গণমাধ্যম ‘র’-এর তোষামোদীতে ব্যস্ত। র’-এর অভিযানের খবরে জনমনে প্রশ্ন জাগতে পারে। তাই প্রচার করার চেয়ে চেপে যাওয়াটাকে মঙ্গল মনে করেন অনেকে।
পত্রিকায় প্রকাশিত খবর অনুযায়ী আটক হওয়া ব্যক্তির নাম জিয়াউর রহমান ওরফে ওয়াক্কাস।

মতামত



আয়ারল্যান্ডের রাজধানী ডাবলিনে গিনেস ব্রুয়ারির ম্যানেজিং ডিরেক্টর পদে কাজ করতেন স্যার হিউ বিভার। তিনি ছুটির দিনে তার বন্ধুদের নিয়ে পাখি শিকার করতে ভালোবাসতেন। তারা যেতেন বনে জঙ্গলে এবং পাহাড়ি এলাকায়। নতুন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার জন্য খুজে বেড়াতেন নতুন জাতির পাখিকে।১০ নভেম্বর ১৯৫১-তে এমনই এক শুটিং টৃপে আয়ারল্যান্ডের নর্থ স্লব নামে একটি জায়গায় গিয়েছিলেন স্যার হিউ এবং তার বন্ধুরা। স্লেনি নদীর তীরে এই জায়গাটি গাছপালায় ভর্তি। এক সময়ে গাছের ডালে বসা একটি গোলডেন প্লোভার (Golden Plover)-এর দিকে বন্দুক তাক করলেন স্যার হিউ।কিন্তু তার লক্ষ্য ব্যর্থ হলো।তিনি বন্ধুদের বললেন, তার মিস করার কারণ হলো গোলডেন প্লোভার-ই ইওরোপের সবচেয়ে দ্রুতগামী পাখি। বন্ধুরা দ্বিমত প্রকাশ করে বললেন, ইওরোপে সবচেয়ে দ্রুতগামী পাখি হচ্ছে রেড গ্রাউস (Red Grouse)।শুটিং টৃপের শেষে তারা সবাই ফিরে গেলেন কাসলবৃজ হাউজে। কিন্তু তর্কের শেষ হচ্ছিল না।এক পর্যায়ে স্যার হিউ বুঝলেন, শুধু পাখি বিষয়েই নয়, অন্যান্য বহু বিষয়েও নিশ্চয়ই এ রকম অনেক প্রশ্ন আছে যার উত্তর আয়ারল্যান্ড তথা ইওরোপে অমীমাংসিত আছে। চায়ের দোকানে, বিয়ার খাওয়ার পাব (Pub)-এ, অফিসে লাঞ্চ আওয়ারে অথবা বাড়িতে ডিনার পার্টিতে এ রকম তর্ক নিশ্চয়ই প্রতিদিনই হয়। সুতরাং এমন একটা বই যদি হয় যেখানে বিভিন্ন রেকর্ডের সব লিস্ট থাকবে তাহলে সেটি নিশ্চয়ই জনপ্রিয় হবে।


বিনোদন



আইপিএলের শুরুতেই শুধু জয় নয়, বুধবার রাতে নাইটদের শিবিরে এসে পৌঁছল আরও এক সুখবর। ইউসুফ পাঠান বাবা হয়েছেন। সে জন্য কেকেআরের পরের ম্যাচে তার খেলতে না পারার খবরেও অবশ্য কেউ অখুশি নন। তার আর একটা কারণও অবশ্য আছে। জাক কালিস ফর্মে যে। বুধবার রাতে হোটেলে ফিরে শাহরুখের সুইটে পার্টিও হলো নাইটদের। ঢালাও খানা-পিনা। সেই পার্টিতেও মধ্যমণি কালিস। কেকেআরের প্রথম ম্যাচ দেখে ফ্র্যাঞ্চাইজির ‘বাদশাহ’ এবার নিজের কাজে ফিরছেন। তবে নাইটদের জন্য রেখে গেলেন প্রচুর প্রেরণা।জানা গেল, বুধবার রাতে ম্যাচের পর টিম হোটেলে ফেরার আগেই দলের ছেলেদের ‘দাওয়াত’ দিয়ে দেন শাহরুখ। হোটেলে ফিরেই টিম মালিকের সুইটে যাওয়ার তাড়াহুড়ো শুরু হয়ে যায় গম্ভীরদের। ওই সময় এক বন্ধু তাকে ফোন করলে গম্ভীর বলেন, “এখন কথা বলতে পারব না। এসআরকে-র পার্টিতে যাচ্ছি। পরে কথা হবে। কাল সকালে।” পার্টিতে দলের সকলেই খোশ মেজাজে। শাহরুখ খানের দেওয়া পার্টিতে খোশ মেজাজে তো থাকবেই সবাই। বাদশাহ নিজেই টুইট করলেন, “শো শেষ। ম্যাচও শেষ। দলের সবার সঙ্গে দেখা হল। এ বার ছবির কাজে ফিরতে হবে। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই কেমন মানুষ এখানে ওখানে চলে যায়! ঝড়ে যেমন পালকের অবস্থা হয়।”


স্বাস্থ্য ও রুপচর্চা



পৃথিবীতে প্রায় ৯৫ প্রজাতির আনারস চাষ হয়। বাংলাদেশে চাষ করা হয় সাধারণত চার জাতের আনারস। জায়েন্ট কিউ, কুইন, হরিচরণ ভিটা ও বারুইপুর। বাংলাদেশে ঘোড়াশাল, সিলেট, চট্টগ্রাম ও কুমিল্লায় এসব জাতের চাষ সবচেয়ে বেশি হয়।ইতিহাস : আনারস বিশ্বের অন্যতম সেরা ফল। এর বৈজ্ঞানিক নাম আনানাস স্যাটিভাস। আকর্ষণীয় সুগন্ধ ও অমøমধুর স্বাদের জন্য আনারস অনেকের কাছেই সমাদৃত। এটি রোমিলিয়েসি পরিবারভুক্ত ফল। আনারসের উৎপত্তিস্থল হলো দক্ষিণ আমেরিকার উষ্ণ অঞ্চল। বিশেষ করে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনায়। আনারস গাছ ১৫১৩ খ্রিস্টাব্দে পর্তুগিজদের দ্বারা ব্রাজিল থেকে মালাবার উপকূলে আমদানি হয়। পরবর্তীতে সমগ্র দক্ষিণ আমেরিকা ও পশ্চিম ভারতীয় দ্বীপপুঞ্জে আনারসের চাষ প্রবর্তিত হয় এবং ক্রমে দক্ষিণ আফ্রিকা, ভারত, থাইল্যান্ড, ইন্দো চীন, ফিলিপাইন, যুক্তরাষ্ট্র (হাওয়াই রাজ্য), মেক্সিকো, মালয়েশিয়া, পূর্ব ভারতীয় দ্বীপপুঞ্জ ও অস্ট্রেলিয়ায় এর চাষ প্রসার লাভ করে।গ্রীষ্মের সময় আনারস গাছে ফুল ফুটে এবং বর্ষা শেষে ফল পাকা শেষ হয়। আনারস বছরে দু’বার তোলা হয়। আগস্ট-সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে গাছে প্রধান ফল পাওয়া যায়। কিন্তু যেসব গাছে ফুল দেরিতে আসে সেখানে শীতের সময় ফল পাকে। বর্ষাকালে ফল সুস্বাদু ও সুমিষ্ট হয় আর রসে টইটুম্বুর থাকে। এছাড়া শীতের ফল ছোট ও টক হয়।

সম্পাদকীয়



ভোটবিহীন নির্বাচনে জয়ী হয়ে সংসদ সদস্যরা যেন এলাকায় এক-একজন বিজয়ী বীর হয়ে উঠেছেন। নিজেদের সংবর্ধনায় ‘হাতি-ঘোড়া’ আনার ব্যবস্থা করতেও পিছিয়ে থাকতে চান না তারা। বাস্তবে হাতি-ঘোড়া পাওয়া না গেলেও এলাকার কোমলমতি শিশুদের ঠিকই পাওয়া যায়। হাতে ফুল নিয়ে প্রচণ্ড রোদের মধ্যে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে রাখার দৃশ্য পত্রিকায় ছাপা হওয়ার পর সমালোচনার মুখে শীর্ষ পর্যায় থেকে তা বন্ধের নির্দেশ ঘটা করে প্রচারিত হয়েছিল। কিন্তু কে শোনে কার কথা! বিনা ভোটে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি বলে কথা!গত সোমবার নারায়ণগঞ্জের এক আলোচিত সংসদ সদস্য সিদ্ধিরগঞ্জের একটি স্কুল অ্যান্ড কলেজে গিয়েছিলেন। সেখানকার বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ, কৃতী শিক্ষার্থী এবং জাতীয় স্কুল পর্যায়ে কৃতী খেলোয়াড়দের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তিনি। পদাধিকারবলে এই প্রতিষ্ঠানের সভাপতিও। আর দাপুটে নেতা হিসেবে তিনি জগত্জুড়েই পরিচিত। এমন একজনের মনোরঞ্জনে প্রতিষ্ঠানটির কর্তৃপক্ষ কিছু করতে বাকি রাখেনি। কয়েকশ’ শিশু শিক্ষার্থীকে রাস্তার দু’পাশে জাতীয় পতাকা হাতে দাঁড় করিয়ে রাখতেও পিছিয়ে থাকেননি তারা। চৈত্রের খরতাপে মানুষ যখন ঘরের ভেতরেই হাসফাঁস করছে, তখন কচি কচি ছেলেমেয়েদের এমন রৌদ্রদণ্ড দিয়ে হলেও তারা নেতার মন রক্ষা করতে চেয়েছেন। জননেতা বলে কথা! তাই অনুষ্ঠান শুরুর আধা ঘণ্টা পর আসেন তিনি। নির্দিষ্ট সময়ের এক ঘণ্টা আগে থেকে প্রচণ্ড রোদে দাঁড়িয়ে থাকতে শিশুদের কী অবস্থা হয়েছিল সেটা বুঝতে কারও অসুবিধা হওয়ার কথা নয়। তবে ওই জননেতাকে গাড়িতে চড়ে অনুষ্ঠান শেষে ফেরার পথে গরমে অসুস্থ হয়ে রাজধানীর একটি অভিজাত হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল বলে খবর পাওয়া গেছে।

শোক-সংবাদ



এম. মছব্বির আলী: মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার প্রাক্তন স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা এবং বর্তমানে জকিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাঃ আমিতাভ দে ১২ এপ্রিল শনিবার ভোর সাড়ে ৪ টায় ঢাকাস্থ ইউনাইটেড প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরলোকগমন করেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর। তিনি দীর্ঘদিন থেকে ডায়াবেটিস, কিডনি ও হৃদরোগ সহ নানা জটিল রোগে আক্রান্ত ছিলেন।৩ সন্তানের জনক ডাঃ অমিতাভের একমাত্র পুত্র সন্তান ২০০৪ সালে মারা যান। মৃত্যুকালে স্ত্রী, ২ মেয়ে ও মা সহ বহু আত্বীয়স্বজন রেখে গেছেন। তাঁর মৃত্যুতে কুলাউড়ায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এদিকে ডাঃ অমিতাভের মরদেহ ঢাকা থেকে এম্বুলেন্সে করে প্রথমে কুলাউড়ার জয়চন্ডি ইউনিয়নের পোষাইনগরে নবনির্মিত গৌরাঙ্গ মহাপ্রভুর দেবলায়ে, পরে কুলাউড়া হাসপাতালে নিয়ে আসলে এক নজর তাকে দেখতে হাসপাতালের ডাক্তার, কর্মকর্তা, কর্মচারী, শুভাকাংঙ্খী, রাজনীতিবিদ, ব্যবসায়ী, বিভিন্ন স্তরের সাধারন মানুষ উপস্থিত হন। এ সময় হাসপাতালের পক্ষ থেকে তার মরদেহে প্রথমে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ আলাউদ্দিন আল আজাদ। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আ স ম কামরুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান ফজলুল হক খান সাহেদ ও নেহার বেগম, সিলেট বিভাগীয় বিএমএ এর সভাপতি ডাঃ রুকন উদ্দিন আহমেদ ও নির্বাহী সদস্য ডাঃ আবু সাঈদ আব্দুল্যাহ মুকুল, মৌলভীবাজার বিএমএ এর সভাপতি ডাঃ সাব্বির হোসেন ও সাধারন সম্পাদক ডাঃ শাহাজাহান কবির চৌধুরী, কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট সৈয়দ কামাল উদ্দিন

ছবি ঘর
ভিডিও গ্যালারী